জাতীয় কংগ্রেসের জন্ম মূহুর্তে বাংলা ও বাঙ্গালিঃ

পার্থ মুখোপাধ্যায়

সব শুরুরও একটা শুরু থাকে। কোনো সুদূরপ্রসারী এবং ইতিহাস পরিবর্তনকারী ঘটনাই হঠাৎ একদিনে ঘটেনা। তার পশ্চাতে অবশ্যই একটা ঘটনাক্রম থাকে। জাতীয় কংগ্রেসেরও জন্মদিন ২৮শে ডিসেম্বর, ১৮৮৫ বলে লিপিবদ্ধ থাকলেও, তার পূর্বেও কিছু ঘটনাক্রম ঈঙ্গিত করে যে সলতে পাকানোর কাজগুলো তার পূর্বেই কিন্তু শুরু হয়ে গিয়েছিল। এই সলতে পাকানো থেকে শুরু করার সময়ে এবং কংগ্রেসের প্রতিষ্ঠার সময়েও তৎকালীন অবিভক্ত বাংলা অঙ্গাঙ্গী ভাবে জড়িয়ে আছে।
এ্যালান অক্টেভিয়ান হিউম ব্রিটিশ সরকারের চাকরি থেকে অব্যাহতি নেওয়ার পর ১৮৮৩ সালে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতকদের উদ্দেশ্য এক খোলা চিঠির মাধ্যমে আবেদন রাখেন মানুষের সমস্যাগুলিকে সরকারের সামনে তুলে ধরার এবং সেই সঙ্গে দেশের প্রশাসন ও রাজনীতিতে আরো বেশি করে অংশ নেওয়ার জন্য। ১৮৮৫ সালের ২৮শে ডিসেম্বর তৎকালীন বোম্বাই শহরে বিভিন্ন মানুষদের উপস্থিতিতে ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেসের প্রতিষ্ঠা হয়। এই প্রথম প্রতিষ্ঠার সম্মেলনে ৭২ জন ডেলিগেট উপস্থিত ছিলেন। জাতীয় কংগ্রেসের এই প্রথম অধিবেশনে প্রথম সভাপতি নির্বাচিত হয়েছিলেন উমেশচন্দ্র বন্দোপাধয়, অর্থাৎ জাতীয় কংগ্রেসের পথ চলা শুরুই হয় একজন বাঙ্গালির সভাপতিত্বে। যে সব মানুষদের সক্রিয় অংশগ্রহণের ফলে জাতীয় কংগ্রেসের প্রতিষ্ঠা সম্ভব হয়েছিলো তাদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য  অ্যালান অক্টোভিয়ান হিউম, হিউম, দাদাভাই নওরোজি, দিনশ এদুলজি ওয়াচা, মহাদেব গোবিন্দ রানাডে রানাডে ও উইলিয়াম ওয়েডারবার্ন প্রমুখ। এক্ষেত্রে সবিশেষ গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো এনারা ছাড়া আরো চার জন মানুষের বিশেষ ভুমিকা ছিলো উমেশচন্দ্র বন্দ্যোপাধ্যায়, সুরেন্দ্রনাথ বন্দ্যোপাধ্যায়, মনমোহন ঘোষ,রমেশ চন্দ্র দত্তদের মতো মানুষদের যারা প্রত্যেকে ছিলেন বাঙ্গালি।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.