‘নৈরাজ্যে নেই-রাজ্যের বাসিন্দা আমরা’-বিশেষ সাক্ষাৎকারে বললেন অধীর রঞ্জন চৌধুরী।

নিজস্ব সংবাদদাতাঃ

বাংলা আজ রাজনৈতিক দূষণ এবং প্রতিহিংসার দূষণে দুষিত। পশ্চিমবঙ্গ প্রদেশ কংগ্রেসের ডিজিটাল মুখপাত্র আন্দোলন ডট ইন-কে দেওয়া এক বিশেষ সাক্ষাৎকারে এমনই বললেন অধীর রঞ্জন চৌধুরী। এ বিষয়ে বলতে গিয়ে প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি তথা লোকসভায় কংগ্রেসের দলনেতা আরো বলেন যে, একদিন আমাদের সব ছিলো, অথচ আজ না-থাকার রাজ্যে পরিণত হয়েছে পশ্চিমবঙ্গ। খেদ প্রকাশ করে অধীর বাবু বলেন যে, এই বাংলা আমাদের একদিন সব দিয়েছিলো, কিন্তু সেই সম্পদকে সঠিকভাবে বয়বহার করার জন্য যে ধী শক্তি, যে ঔদার্য এবং প্রজ্ঞা দরকার তা বর্তমানে এ রাজ্যের শাসকের নেই। শুধু বর্তমান শাসকই নয়, বিগত কয়েক দশক ধরেই পশ্চিমবঙ্গের এই অবনমন হয়েছে, বর্তমান শাসকের সময়ে তা আরো খারাপের দিকে গেছে বলে অধীরবাবু উল্লেখ করেন। গণতন্ত্রের মূল সৌন্দর্যই লুকিয়ে থাকে গঠনশীল বিরোধিতার মধ্যে, সেই বিরোধীদের নিশ্চিহ্ন করে -বিরোধী শূন্য রাজ্য তৈরি করার ফ্যাসীবাদী অপচেষ্টা আদপে রাজ্যে গৃহযুদ্ধের পরিবেশ সৃষ্টি করছে বলেও অধীর বাবু দাবি করেন। তিনি আরো বলেন ক্রমশ এক নৈরাজ্যের অধিবাসী হয়ে পড়ছি আমরা।

কেবল রাজ্যের শাসকের বিরুদ্ধে নয়, সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে কেন্দ্রের বিজেপি সরকারকেও এক হাত নেন অধীর চৌধুরী। তিনি বলেন, বিজেপি সরকার দেশের মানুষকে স্রেফ লুট করছে। যেভাবে রোজ নিয়ম করে পেট্রোল ডিজেলের দাম বাড়ছে এবং সাধারণ মানুষের কাছ থেকে তার জন্য অতিরিক্ত কর আদায় করা হচ্ছে, পাশাপাশি কর্পোরেট ট্যাক্স কমানো হচ্ছে –এই পুরো সিস্টেমের তীব্র সমালোচনা করেন তিনি।

জনকল্যাণমুখী পদক্ষেপের আড়ালে আদপে জনবিরোধী নীতি নিয়ে চলছে কেন্দ্রীয় সরকার, দেশের আর্থিক অবস্থা ভয়ংকর রকমের খারাপের দিকে এগিয়ে চলছে ; এমতবস্থায় দেশের মানুষ এক ভয়ংকর অবস্থার মুখোমুখি হতে চলেছে বলেও অধীর বাবু আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন।

( সাক্ষাৎকারটি নিয়েছেন সুমন রায় চৌধুরী)

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.