*’নরেন্দ্র মোদী কে ভয় পাইনা, গণতন্ত্র রক্ষায় লড়াই চালিয়ে যাব”: রাহুল গান্ধি*

শুভাশিস মজুমদারের বিশেষ প্রতিবেদন

আজ, বৃহস্পতিবার দিল্লিতে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধি বলেন, “ন্যাশনাল হেরাল্ড বিষয়ে এঁরা (পড়ুন নরেন্দ্র মোদী ও তাঁর দল) ভয় দেখাতে চাইছে। এঁরা ভাবছেন যে আমাদের একটু ভয় দেখিয়ে চুপ করিয়া দেবেন। এটা হবে না। এই দেশে মোদী ও অমিত শাহ লোকতন্ত্রের বিরুদ্ধে যা করছেন তার বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে যাব। আমরা নরেন্দ্র মোদী কে ভয় পাই না – যা করার তিনি করুন, আমাদের তাতে কিছু বদলাবে না।”

রাহুল গান্ধি আরো বলেন, “দেশ কে রক্ষা করা আমার কাজ, আর তা’ আমি করে যাব।”কংগ্রেস সদর দফতর ও সোনিয়া গান্ধি, রাহুল গান্ধির বাসভবনের সামনে পুলিশি তৎপরতা এবং ব্যারিকেড করার প্রসঙ্গে সংসদ চত্ত্বরে বৃহস্পতিবার রাহুল গান্ধি সাংবাদিকদের বলেন, ” আমরা ভয় পাই না। যত ইচ্ছে ব্যারিকেড করা হোক। সত্যকে ব্যারিকেড দিয়ে আটকানো যায় না। আমাদের আন্দোলন জারি থাকবে।”

রাজ্যসভায় কংগ্রেস দলনেতা মল্লিকার্জুন খড়্গে কে ইডির তলব প্রসঙ্গে, খড়্গে আজ রাজ্যসভায় তীব্র প্রতিবাদ করে বলেন, ” যখন সংসদ চলছে, তখন (আমার কাছে) ইডির সমন আসছে, ‘আপ জলদি আইয়ে’। এমন ভাবে চললে দেশের গণতন্ত্র কি জীবিত থাকবে ?”বুধবার দিল্লিতে এআইসিসি সদর দফতরের রাস্তাটি অবরুদ্ধ করা হয়েছিল। কংগ্রেসের অভিযোগ যে কংগ্রেস দলটিকেই অবরুদ্ধ করা হয়েছে। বুধবার এই নিয়ে কংগ্রেস নেতা জয়রাম রমেশ একটি প্রেস কনফারেন্সে তীব্র অভিযোগ করেন। দিল্লিতে কংগ্রেসের মালিকানাধীন ন্যাশনাল হেরাল্ড অফিসে ইডি ইয়াং ইন্ডিয়ান (ওয়াইআই) এর চত্বরটি সিল করার পরেই এটি ঘটল।

“কংগ্রেস অবরোধের মধ্যে রয়েছে। দিল্লি পুলিশ আমাদের সদর দফতর এবং আইএনসি সভাপতি ও প্রাক্তন সভাপতির বাড়ি ঘিরে রেখেছে। এটি প্রতিহিংসার রাজনীতির সবচেয়ে খারাপ রূপ। আমরা নত হব না! আমরা নীরব থাকব না! আমরা আমাদের আন্দোলন চালিয়ে যাব। মোদী সরকারের অন্যায় ও ব্যর্থতার বিরুদ্ধে আমাদের আওয়াজ তোলা জারি থাকবে!”, জয়রাম রমেশ আরেকটি টুইটে বলেছেন।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.