নন্দীগ্রামে চাপে দুপক্ষই, তাই আক্রমণ সংযুক্ত মোর্চার প্রার্থী ওপর

তৃতীয় দফার নির্বাচনের দিকে তাকিয়ে সারা দেশ।এখানে লড়াইয়ের কেন্দ্রে রয়েছে মুখ্যমন্ত্রী বনাম তারই মন্ত্রীসভার একসময়ের সতীর্থ ও বর্তমানে বিজেপির নেতা শুভেন্দু অধিকারী। একই সাথে আছেন সংযুক্ত মোর্চার প্রার্থী যুবনেত্রী মীনাক্ষী মুখার্জী। একদিক থেকে দেখলে সে তো তুলনায় যথেষ্ট লাইটওয়েট,অন্ততঃ আজকের অর্থবহুল রাজনৈতিক মঞ্চে।কিন্তু তার ওপর বার বার আক্রমন হচ্ছে কেন? কেনই বা তাকে নির্বাচনের প্রচার ছেড়ে ঘন্টার পর ঘন্টা থানার সামনে ধর্ণা ও অবস্থানে বসতে হচ্ছে?
আসলে বাম যুব সংগঠনের নেত্রী মীনাক্ষী সারা বাংলায় চাকুরি ও শিল্প গঠনের দাবী নিয়ে লড়াইয়ের একজন অগ্রগন্য নেত্রী। প্রচারের প্রথম দিন থেকেই তার বাড়ী বাড়ী গিয়ে প্রচারে বেশ সাড়া পাওয়া গিয়েছিল। তখনই প্রমাদ গোনে দুই শাসক পক্ষ। দাউদপুরের নয়নানে তাই তাকে প্রবল বাধা দেওয়া।চূড়ান্ত সাম্প্রদায়িক প্রচারের মাঝে তার পরিশীলিত প্রচার জনমানুষে যেভাবে ছাপ ফেলছিল তাতে দুপক্ষকেই চিন্তায় ফেলেছিল। তাই এই আক্রমণ।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.