আদানির বন্দর থেকে আবারও উদ্ধার বিপুল পরিমাণে ড্রাগ–মুখে কুলুপ এঁটেছেন প্রধানমন্ত্রী

সুমন রায় চৌধুরীর প্রতিবেদনঃ

কংগ্রেস বারবারে অভিযোগ তুলেছে যে, গুজরাত ক্রমশই ড্রাগ মাফিয়াদের স্বর্গরাজ্যে পরিণত হচ্ছে। শুধু তাই নয় গুজরাতের আদানির বন্দর থেকে বারবার ড্রাগ সহ মাদকদ্রব্যের সন্ধান যেভাবে মিলছে তার ফলে তো গুজরাতকে এই মুহূর্তে দেশের ‘গেটওয়ে অফ ড্রাগস’-এর তকমাও দেওয়া হচ্ছে। আর এই তকমাতে আরো একবার সিলমোহর পড়লো গত মঙ্গলবার। ওইদিন গুরজাতের আদানিদের মুন্দ্রা বন্দর থেকে উদ্ধার হয়েছে ৭৫.৩ কেজির মতো হিরোইন, যার বাজারি মূল্য প্রায় ৩৭৬ কোটি টাকা। এই মুন্দ্রা বন্দর থেকেই চলতি বছরের গত মে মাসে ৫১ কেজি কোকেন উদ্ধার হয়েছিলো এবং গত বছরের সেপ্টেম্বর মাস নাগাদ ১৯ হাজার কোটি টাকার মতো মাদক উদ্ধার হয়েছিলো। কিন্তু বারবার গুজরাতের এই মুন্দ্রা বন্দর থেকে মাদক উদ্ধার হওয়ার পরেও প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি কিম্বা স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহরা এ বিষয়ে মুখে কুলুপ এঁটে রয়েছেন। উল্লেখ্য গুজরাতের এই মুন্দ্রা বন্দরটি বর্তমানে আদানিদের তত্ত্বাবধানে রয়েছে। প্রধানমন্ত্রী ঘনিষ্ঠ এই শিল্পপতির অধীনে থাকা বন্দর হয়ে ভারতে মাদক দ্রব্য প্রবেশ করেই চলেছে, অথচ সব দেখে শুনেও কেন্দ্রীয় সরকার তথা খোদ প্রধানমন্ত্রী এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর তরফ থেকে এ বিষয়ে আজ পর্যন্ত কোনো প্রতিক্রিয়া মেলেনি। নিজের অত্যন্ত ঘনিষ্ঠ শিল্পপতির বন্দরের নাম এই বারবার মাদক উদ্ধারের সঙ্গে জড়িয়ে যাচ্ছে বলেই কি প্রধানমন্ত্রী আশ্চর্যজনক ভাবে নীরব? এমন প্রশ্ন আজ উঠতে শুরু করেছে।

ছবিঃ ( ফাইল থেকে সংগৃহীত)
Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.