কেলেঘাই পরিদর্শন করে বন্যা প্রতিরোধে আন্দোলনে কংগ্রেস

নিজস্ব সংবাদদাতা, পূর্ব মেদিনীপুর, ২৮ শে মেঃ

বন্যা প্রতিরোধে উপযুক্ত পরিকল্পনা প্রণয়ন এবং ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি নিয়ে পথে নামলেন পূর্ব মেদিনীপুর জেলা কংগ্রেসের কর্মীরা।

কেলেঘাই – বাগুই নদী ও তাদের সঙ্গে সংযুক্ত খালগুলি, পটাশপুর বারচৌকা বেসিনের খালগুলি সংস্কার না হওয়ায়; নদীর বুকে অবৈধভাবে মাছের ভেড়ী ও ইটভাটা গড়ে ওঠায়, নদী ও খালের বাঁধে ঘরবাড়ি নির্মাণ হওয়ায় এবং কয়েক দিনের অতিবর্ষণে ২০২১ সালের এগরা-পটাশপুর-ভগবানপুরের বিস্তীর্ণ এলাকায বন্যা প্লাবনে বিধ্বস্ত হয়ছিল। কয়েক লক্ষ হেক্টর জমির ধান, পান, মাদুরকাঠি, সমস্ত প্রকার সবজি চাষ, মাছের চাষ সম্পূর্ণ নষ্ট হয়ে গেছে। হাজার হাজার মাটির ঘর বাড়ি সম্পূর্ণ ধ্বংস হয়ে গেছে। কিন্তু এখনও স্থায়ীভাবে বন্যা প্রতিরোধে কার্যকরী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয় নি। কেলেঘাই নদীর বাঁধের যে সমস্ত জায়গায় ধ্বংস নেমে ছিল, বাঁধের নিচু এলাকায় সাময়িক ভাবে মাটির বস্তা দিয়ে জল আটকানোর চেষ্টা করা হয়ছিল, বাঁধের সেই সব ক্ষতিগ্রস্ত বা দুর্বল এলাকাগুলো এখনও সারানো হয়নি। বন‍্যা বিধ্বস্ত এলাকার মানুষ আতঙ্কগ্রস্ত আগামী বর্ষাকালের কথা ভেবে।

আজ পটাশপুর ১নং ব্লক কংগ্রেসের উদ‍্যোগে কেলেঘাই সংলগ্ন এলাকা পরিদর্শন করা হয় আতঙ্কগ্রস্ত মানুষজনের সঙ্গে কথা বলে অবিলম্বে স্থায়ীভাবে বন্যা প্রতিরোধে কার্যকরী ব্যবস্থা গ্রহণের দাবী জানানো হয়। উপস্থিত ছিলেন পূর্ব মেদিনীপুর জেলা কংগ্রেস কমিটির সভাপতি মানস কর মহাপাত্র, জেলা কংগ্রেসের সাধারন সম্পাদক সাধনকান্তি উত্থাসনী, আসরাফুল বেগ, পটাশপুর ১নং ব্লক কংগ্রেস সভাপতি শঙ্কর বল্লভ। এগরা ১নং ব্লক কংগ্রেস সভাপতি অমিতাভ জানা, কংগ্রেস নেতা মানিক মান্না, সেক মুস্তাকিন প্রমূখ।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.