অধীর চৌধুরীর সন্দেহ সত্যি, ধনকড়কে জেতাতেই আলভাকে ভোট দেবেনা তৃণমূল।

নিজস্ব প্রতিবেদন, ২১ শে জুলাইঃ

দার্জিলিং-এ রাজভবনে জগদীশ ধনকড় এবং হেমন্ত বিশ্বশর্মার সঙ্গে বাংলার মুখ্যমন্ত্রীর বৈঠক নিয়ে আগেই সন্দেহ প্রকাশ করেছিলেন লোকসভায় কংগ্রেসের দলনেতা অধীর রঞ্জন চৌধুরী। সেই সন্দেহই সত্যি প্রমাণ হলো। বৃহস্পতিবার বিকালে তৃণমূলের পক্ষ থেকে জানিয়ে দেওয়া হলো উপরাষ্ট্রপতি নির্বাচনে তারা ভোটদানে বিরত থাকবে। উল্লেখ্য দেশের উপরাষ্ট্রপতি নির্বাচনে যখন এন ডি এ তথা বিজেপি -র মনোনীত প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন পশ্চিমবঙ্গের প্রাক্তন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড় তখন ১৭ টি বিরোধী দল বৈঠক করে সর্বসম্মতিক্রমে মার্গারেট আলভাকে প্রার্থী হিসেবে মনোনীত করেছে। আমন্ত্রণ পাওয়া সত্ত্বেও তৃণমূল সেই প্রার্থী বাছাইয়ের বৈঠকে গরহাজির ছিলো। আজ তৃণমূলের ভোটদানে বিরত থাকার ঘোষণায় সবটা পরিস্কার হয়ে গেলো। রাজনৈতিক মহলে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে যে জগদীপ ধনকড়ের বিরুদ্ধে সকাল-বিকাল তৃণমূল এত বিষোদগার করত,তাহলে সে সবই কি লোক দেখানো ছিলো? তাই কি জগদীপ ধনকড়ের জেতার রাস্তা মসৃণ করতেই তৃণমূল ভোট দানে বিরত থাকলো! এদিকে তৃণমূলের এই ধরনের সিদ্ধান্ত নতুন কিছু নয় বলেও রাজনৈতিক মহলের বক্তব্য। কারণ এর আগেও CAA-NRC নিয়ে ভোটদানের সময় তাঁদের সাংসদরা সংসদে ভোটদানে বিরত ছিলেন। তবে উপরাষ্ট্রপতি নির্বাচনে তৃণমূলের এই অবস্থানের ফলে বিজেপি বিরোধি লড়াইয়ে তৃণমূলের বিশ্বাসযোগ্যতা তলানিতে গিয়ে ঠেকলো বলেও ওয়াকিবহাল মহলের ধারণা।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.