নুপুর শর্মা ও নবীন জিন্দলদের বিরুদ্ধে এফ আই আর মোস্তাক আলমের

নিজস্ব সংবাদদাতা, মালদহ,১৩ জুন:

গত রবিবার হরিশ্চন্দ্রপুর থানায় বিজেপি মুখপাত্র নূপুর শর্মা ও নবীন জিন্দলের বিরুদ্ধে এফ আই আর দায়ের করলেন পশ্চিমবঙ্গ প্রদেশ কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক ও প্রাক্তন বিধায়ক মুস্তাক আলম।তিনি তাঁর করা এফবআই আর-এ অভিযোগ করেছেন, গত ২৬ মে জ্ঞানব্যাপী মসজিদ সম্পর্কিত এক টিভি বিতর্কে বিজেপির মুখপাত্র নূূপুর শর্মা মুসলীমদের পবিত্র ধর্মগ্রন্থ কোরান সম্পর্কে প্ররোচনামূলক ও অসন্মানজনক বক্তব্য রাখেন।একইসাথে মুসলীমদের একান্ত বিশ্বাসের পয়গম্বর সম্পর্কে অত্যন্ত নিম্নমানের কটুক্তি করেন।এই বক্তব্য সংবিধানে দেশের মানুষকে যে ধর্মের অধিকার ও স্বাধীনতা দেওয়া হয়েছে তা প্রবলভাবে লঙ্ঘন করেছে।তার এই সংবিধান বিরোধী,গণতন্ত্র বিরোধী ও ধর্মীয় স্বাধীনতার অধিকার বিরোধী মনোভাব যা বৈদুতিন মাধ্যমে ও ভিডিওতে ভাইরাল করা হয়েছে তা সংবিধানের আর্টিকেল ২৫ থেকে ২৮ নং ধারা লঙ্ঘন করেছে বলেও মোস্তাক আলম তাঁর এফ আই আর-এর বক্তব্যে উল্লেখ করেন।ফলে দেশের আইন অনুসারে তাকে এবং নবীন জিন্দলকে গ্রেপ্তার করা প্রয়োজন বলে মোস্তাক আলম দাবি করেছেন।

তিনি এটাও উল্লেখ করেছেন এই ঘটনার পর বিশ্বের ৫৭ টি দেশ ভারতের যাবতীয় পণ্য বয়কট করেছে যার ফলে দেশের মানুষ প্রতিদিন অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছেন।কেন ও কে এই বিশাল ক্ষতির দায় নেবে? নূপুর শর্মার পূর্বের এই ধরনের আচরনের জন্য একবার প্রাক্তন আইনজীবী ও বিজেপির প্রথমশ্রেণীর নেতা বাংলার মুখ্যমন্ত্রীকে অনুরোধ জানিয়েছিলেন যাতে তার বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা না নেওয়া হয়।তখন তিনি কথা দিয়েছিলেন যে শ্রীমতি শর্মা ভবিষ্যতে কখনও এধরনের আচরন করবেন না।কিন্তু শ্রীমতি শর্মা বার বার একই ধরনের সংবিধানবিরোধী আচরণ করে চলেছেন।তাই তার বিরুদ্ধে আই পি সি ও সি আর পিসি’র বিভিন্ন ধারায় মামলা দায়ের করা দরকার বলে অভিমত প্রকাশ করেছেন প্রাক্তন বিধায়ক মোস্তাক আলম।

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.