গার্ডেনরিচে আই এন টি ইউ সি ‘র নেতৃত্বে শ্রমিক বিক্ষোভ-

সৌরভ কুন্ডু, কোলকাতা; ৮ ই জুনঃ

ভারত সরকারের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীন গার্ডেনরিচ শিপ বিল্ডার্স ও ইঞ্জিনিয়ার্স এর প্রবেশপথে আজ সকাল ৭.৪৫ মিনিট থেকে, কর্তৃপক্ষের শ্রমিক বিরোধী নীতির বিরুদ্ধে, এক বিরাট জনসভার আয়োজন করা হয়। মূলতঃ, কর্মদিবস ২৬ দিন থেকে কমিয়ে ২৪ দিন করে দেওয়ার কারণে শ্রমিকদের মূল বেতনে প্রতি মাসে অন্তত ২০০০ টাকা করে কমে যাওয়ার প্রতিবাদে এই মহা জনসভার আয়োজন। গার্ডেনরিচ কর্তৃপক্ষ অভূতপূর্ব ও একতরফা ভাবে যে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তা’ ইপিএফ ও মিসেলানিয়াস এক্ট, ইএসআই এক্ট, পেমেন্ট অফ ওয়েজেস এক্ট, এইচআরএ এক্ট, এনআই এক্ট ( মূলতঃ জাতীয় ও উৎসবকালীন ছুটি সম্পর্কিত ) এবং সর্বোপরি ১৯৯৭ সালের ত্রিপাক্ষিক চুক্তি এবং পেমেন্ট অফ বোনাস অ্যাক্ট। আই এন টি ইউ সি’র রাজ্য সভাপতি মহ: কামরুজ্জামান কামার তাঁর ভাষণে কর্তৃপক্ষ কে সতর্ক করে বলেন যেন অবিলম্বে এতগুলো আইনকে বৃদ্ধাঙ্গুষ্ঠ দেখিয়ে একতরফাভাবে যে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে তা’ যেন প্রত্যাহার করে নেওয়া হয় নতুবা গার্ডেনরিচ শিপবিল্ডার্স এর আই এন টি ইউ সি অনুমোদিত ইউনিয়নের সভাপতি ও রাজ্য আই এন ইউ সি’র বরিষ্ঠ সম্পাদক মহ: মুক্তারের নেতৃত্বে

দীর্ঘকালীন বিক্ষোভ সমাবেশ চলবে যতক্ষণ পর্যন্ত কর্তৃপক্ষ বা ঠিকাদার উপরিউক্ত ন্যায্য দাবি মেনে না নেন। কামরুজ্জামান কামার, মহ: মুক্তার ও তাবরেজ আলম তিনজনেই তাদের ভাষণে ফ্যাসিবাদী নরেন্দ্র মোদি ও বিজেপি সরকারের বিভিন্ন শ্রমিকবিরোধী নীতি ও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের স্বৈরাচারী রাজ্য সরকারের তীব্র নিন্দা জানান। গার্ডেনরিচের চারটি ইউনিটে প্রায় চার হাজার ঠিকা শ্রমিক যেভাবে ঐক্যবদ্ধ ভাবে কাজ করে চলেছেন তার জন্য তাদের প্রশংসিত করা হয়। কামরুজ্জামান কামার তাঁর বক্তব্যে শ্রমিক শ্রেণির প্রতি আহ্বান জানিয়ে আরো বলেন-” উঠুন, জাগুন, এখন কেন্দ্রীয় সরকারের শ্রমবিরোধী নীতি ও শ্রমআইনের ভুল প্রয়োগের বিরুদ্ধে লাগাতার ঐক্যবদ্ধ ভাবে আন্দোলন চালিয়ে যাওয়া দরকার। “

Spread the love

Leave a Reply

Your email address will not be published.